স্বামীর ভালোবাসা কমে গেলে নারীরা যে আমল করবেন

স্বামী-স্ত্রী সম্পর্ক পূতঃপবিত্র। নানা কারণে এ বন্ধনে ফাটল ধরা স্বাভাবিক। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারস্পরিক সুসম্পর্ক নষ্ট হোক এটা কারোরই কাম্য নয়। একান্তই যদি স্বামীর প্রতি স্ত্রী কিংবা স্ত্রীর প্রতি স্বামী অসন্তুষ্ট হয় তবে তাদের জন্য রয়েছে কুরআনের সুন্দর আমল।

যে আমলে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে সুসম্পর্ক তৈরি হবে। পরিবারে শান্তি ও শৃঙ্ক্ষলা স্থির হবে। তাই স্ত্রীর প্রতি যদি স্বামীর ভালোবাসা কমে যায় কিংবা স্বামীর প্রতি স্ত্রীর ভালোবাসা কমে যায় তবে এ আমলটি করা যেতে পারে।

উচ্চারণ: ওয়া মিনান্ নাসি মাইঁ ইয়াত্তাখিজু মিংদুনিল্লাহি আংদাদাইঁ ইয়ুহিব্বুনাহুম্ কাহুব্বিল্লাহ; ওয়াল্লাজিনা আমানু আশাদ্দু হুব্বাল্লিল্লাহ; ওয়া লাও ইয়ারাল্লাজিনা জ্বালামু ইজ ইয়ারাওনাল আজাবা আন্নাল কুওওয়াতা লিল্লাহি ঝামিআও ওয়া আন্নাল্লাহা শাদিদুল আজাব।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১৬৫)

আমালুল কুরআন: যদি কোনো স্বামী তার স্ত্রীর প্রতি অসন্তুষ্ট থাকে তখন স্ত্রী মিষ্টি জাতীয় বস্তুর ওপর এ আয়াত পাঠ করে দম (ফুঁ) করবে এবং স্বামীকে তা আহার করাবে। আল্লাহর ইচ্ছায় অসন্তুষ্ট স্বামী স্ত্রীর প্রতি সন্তুষ্ট হবে। তবে অবৈধ সম্পর্কের ক্ষেত্রে কোনো উপকার হবে না। (তাফসিরে নুরুল কুরআন)

সুতরাং পারিবারিক শান্তি ও শৃঙ্ক্ষলায় স্বামী-স্ত্রীর সুসম্পর্ক খুবই জরুরি। যে সব পরিবারে স্বামী-স্ত্রীর মনোমালিন্য রয়েছে, তারা কুরআনের এ আমলের মাধ্যমে স্বামী-স্ত্রীর সুসম্পর্ক তৈরি করে নিতে পারেন।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে কুরআনি আমলের মাধ্যমে সব স্বামী-স্ত্রীকে নিজেদের মধ্যে সুসম্পর্ক তৈরির মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণের তাওফিক দান করুন। (আমিন)

Pronoy Deb Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *