নির্যাতিত সেই পূর্ণিমা কিনলেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম | পড়ুন বিস্তারিত ...

নির্যাতিত সেই পূর্ণিমা কিনলেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম

মঙ্গলবার ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরুর দিনে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন তিনি।

একাদশ সংসদের সরাসরি নির্বাচনের ৩০০ আসনের মধ্যে ২৯৯টিতে ভোট হয়েছে। এখন সংরক্ষিত ৫০টি আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচনের তোড়জোড় চলছে।

রাজনৈতিক দলগুলোর আসন সংখ্যার অনুপাতে সংরক্ষিত আসন বণ্টিত হবে। আওয়ামী লীগের ভাগে পড়েছে ৪৩টি আসন। সেই ৪৩টি আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী বাছাইয়ের প্রক্রিয়ায় নিজের জন্য ফরম নিলেন পূর্ণিমা।

২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত জোট ক্ষমতায় যাওয়ার পর দেশের বিভিন্ন স্থানে হিন্দু সম্প্রদায় এবং আওয়ামী লীগের সমর্থকদের উপর নির্যাতন নেমে আসে, যে কথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিভিন্ন সময়ে তুলে ধরে আসছেন।

সেবার ভোটের পরপরই ৮ অক্টোবর সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া থানার দেলয়া গ্রামের অনিল কুমার শীলের পরিবারের বাড়িতে হামলা হয়। হামলাকারীরা দলবেঁধে ধর্ষণ করে অনিল শীলের ছোট মেয়ে পূর্ণিমাকে, তখন তিনি দশম শ্রেণিতে পড়তেন। ধর্ষণের শিকার হয়ে প্রায় বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছিলেন পূর্ণিমা।

ধর্ষণকারীরা সবাই বিএনপি-জামায়াত জোটের সমর্থক হিসেবে চিহ্নিত হয়েছিল। ২০১১ সালের ৪ মে এই ধর্ষণ মামলায় ১১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও প্রত্যেককে এক লাখ টাকা করে জরিমানা করে আদালত।

সেই পূর্ণিমাকে গত বছর তৎকালীন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম তার পার্সোনাল অফিসার পদে নিয়োগ দেন।

এক ঝাঁক তারকা অভিনেত্রীও সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য হতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কিনেছেন, যারা এবার ভোটে নৌকার প্রচারে নেমেছিলেন।

এদের মধ্যে রয়েছেন সুবর্ণা মুস্তাফা, শমী কায়সার, অপু বিশ্বাস, জ্যোতিকা জ্যোতি, শাহানুর। অভিনেত্রীদের মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য সারাহ বেগম কবরীর পাশাপাশি এবার মনোনয়ন ফরম কিনেছেন সুজাতাও। যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটার তুরিন আফরোজও আওয়ামী লীগের এমপি হতে মনোনয়ন ফরম কিনেছেন।

আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাদের মধ্যে মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন দলের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ফজিলাতুন্নেসা ইন্দিরা, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের নেতা হাসিনা দৌলা, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম ক্রিক, মহিলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক রোজিনা নাসরিন, যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার, সাবেক সাংসদ ফজিলাতুন্নেসা বাপ্পী ও নুরজাহান বেগম মুক্তা।

ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রয়াত আব্দুল আজিজের স্ত্রী রাবেয়া আজিজ এবং প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী প্রয়াত মাহবুবুল হক শাকিলের স্ত্রী নিলুফার আঞ্জুম পপিও মনোনয়ন ফরম নিয়েছেন।

নীলুফার সাংবাদিকদের বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে সুযোগ দেন, তাহলে আমি দেশের অবলা নারীদের জন্য কাজ করব।”

ছাত্রলীগের সাবেক নেতা শাকিল ২০১৬ সালের ৫ ডিসেম্বর মারা যান। মৃত্যুর সময় তিনি অতিরিক্ত সচিব মর্যাদায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারীর দায়িত্বে ছিলেন। তার আগে তিনি প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (মিডিয়া) ও উপ-প্রেস সচিবের দায়িত্বে ছিলেন।

প্রথম দিনে ৬ শতাধিক মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে বলে আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন। প্রতিটি ফরমের দাম ছিল ৩০ হাজার টাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*