গ্যালারি থেকে সালাহ ও মুসলমানদের গালি : ব্রিটেনে তোলপাড় | পড়ুন বিস্তারিত ...

গ্যালারি থেকে সালাহ ও মুসলমানদের গালি : ব্রিটেনে তোলপাড়

গত সোমবার রাতে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচের সময় লিভারপুল এফসির মিসরীয় স্ট্রাইকার মোহাম্মাদ সালাহকে দর্শক গ্যালারি থেকে গালি দেয়ার ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে ফুটবল বিশ্বে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে দেখা গেছে ম্যাচের একটি পর্যায়ে মোহাম্মাদ সালাহ ও মুসলমানদের উদ্দেশ্যে গালি দেয়া হয় দর্শক গ্যালারি থেকে। এই ঘট্নায় নড়েচড়ে বসেছে ইংলিশ ফুটবল অঙ্গন।

সোমবার রাতে লিভারপুল এফসির ম্যাচ ছিলো ওয়েস্ট হ্যাম ক্লাবের বিপক্ষে। ওয়েস্ট হ্যামের মাঠে অনুষ্ঠিত ওই ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়। সেই ম্যাচের একটি মুহূর্তে লিভারপুলের মিসরীয় স্ট্রাইকার সালাহকে গালি দেয়া হয় দর্শক গ্যালারি থেকে। ম্যাচের পর ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। অনেকেই এ বিষয়টিকে লজ্জাজনক হিসেবে আখ্যায়িত করে এর বিচার চেয়েছেন।

ভিডিওতে দেখা গেছে ম্যাচের একটি পর্যায়ে লিভারপুলের হয়ে ডান প্রান্তে কর্নার কিক নিতে আসেন মোহাম্মাদ সালাহ। এক দর্শক তার মোবাইল ফোনে সেই দৃশ্য ভিডিও করছিলেন। সে সময়ই পাশ থেকে ভেসে আসে গালি। গালিগুলোতে এমন অশ্রাব্য ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে যা কোন সংবাদ মাধ্যমেই প্রকাশ করা হয়নি। তবে ভিডিওতে দেখা গেছে তাতে বলা হয় ‘সালাহ তুমি …..(অশ্লীল) মুসলিম। মুসলিম দেশগুলোকে …….(অশ্লীল)।’ এরপর আরো একটি অশ্লীল শব্দ উচ্চারতি হয় সালাহর উদ্দেশ্যে।

মাত্র ১৩ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটি টুইটারে পোস্ট করে ধারণকারী লিখেছেন, ‘ওয়েস্ট হ্যামের সাথে লিভারপুলের ম্যাচ দেখতে গিয়েছিলাম। যা শুনলাম তাতে খুবই কষ্ট পেলাম। এমন লোকরা আমাদের সমাজে থাকার উপযুক্ত নয়, তার চেয়ে খালি গ্যালারিতে ম্যাচ হওয়া ভালো।’

এরপরই টুইটারে ভাইরাল হয় ঘটনাটি। ফুটবল ভক্তরা এর প্রতিবাদে ফেটে পড়ে। ওয়েস্ট হ্যাম ক্লাব ও লন্ডন মেট্রোপলিটন পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত করার ঘোষণা দিয়েছে। ক্লাবটি জানিয়েছে তারা দ্রুত এই ঘটনায় দায়ী ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গকে খুঁজে বের করতে চেষ্টা করবে। এক বিবৃতিতে ক্লাব কর্তৃপক্ষ বলেছে, তারা এ ঘটনার বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করবে। অভিযুক্তদের কোন ছাড় দেয়া হবে না। যে কোন ধরনের সহিংসতা বা বর্ণবাদী ঘটনার বিরুদ্ধে তারা সচেতন।

বিবৃতিতে আরো বলা হয়, আমরা একটি অনন্য ফুটবল ক্লাব। এ ধরনের ঘটনার জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিস্তারিত তথ্য পুলিশকে দেয়া হবে এবং লন্ডনের স্টেডিয়ামে তাদের আজীবনের জন্য নিষিদ্ধ করা হবে। আমাদের স্টেডিয়ামে এ ধরনের আচরণের কোন স্থান নেই।

পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে তারা ইতোমধ্যেই ভিডিওটি হাতে পেয়ে ঘটনার বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে। এক বিবৃতিতে পুলিশ বলেছে, ওয়েস্ট হ্যাম বনাম লিভারপুলের ম্যাচে এক ফুটবলারের উদ্দেশ্যে বর্ণবাদী মন্তব্য নিয়ে যে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়েছে সে বিষয়ে আমরা সচেতন।

গত কয়েক মৌসুম ধরেই লিভারপুল ক্লাবে খেলছেন ২৬ বছর বয়সী মোহাম্মদ সালাহ। ক্লাবটির সেরা তারকা হিসেবে ইতোমধ্যেই তিনি খ্যাতি আদায় করে নিয়েছেন। তার ঝুলিতে পুড়েছেন ইংল্যান্ডের বর্ষসেরা ফুটবলারসহ অনেক পুরস্কার। আফ্রিকার বর্ষসেরা ফুটবলারও হয়েছেন টানা দুবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*